You are currently viewing শেয়ার মার্কেট সম্পর্কে ভ্রান্ত কয়েকটি ধারণা । আপনিও কী এইসব ভাবছেন ?

শেয়ার মার্কেট সম্পর্কে ভ্রান্ত কয়েকটি ধারণা । আপনিও কী এইসব ভাবছেন ?

শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করা নিয়ে অনেকেই দ্বন্দের মধ্যে পড়ে যান। বিনিয়োগ করতে আগ্রহী অথচ একটা চাপা আশঙ্কাও কাজ করে। সাধারণত যারা শেয়ার বাজারে নতুন তারা এই বিভ্রান্তির মধ্যে বেশি পড়েন। নতুন বিনিয়োগকারীদের মধ্যে বিনিয়োগ বা শেয়ার মার্কেট নিয়ে বেশ কিছু ভ্রান্ত ধারণা পোষণ করতেও দেখা যায়। 

আপনি যদি একজন নতুন বিনিয়োগকারী হয়ে থাকেন তাহলে আজকের আর্টিকেলটি আপনারই জন্য। একবার মিলিয়ে দেখে নিন তো এগুলির মধ্যে আপনারও কোন ভ্রান্ত ধারণা রয়েছে কিনা। 

  1. ধরুন আপনি শেয়ার মার্কেট নিয়ে কিছুই জানেন না এবং আপনার পরিচিত যে কোন একজন ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসা করতে গেলেন শেয়ার মার্কেট সম্পর্কে কিছু জানার জন্য। প্রথমেই যে কথাটি আপনার শোনার সম্ভাবনা সব চাইতে বেশি তা হল শেয়ার মার্কেটে টাকা খাটানো জুয়া খেলার সমগোত্রীয়। কিন্তু যাদের থেকে এই ধরণের কথা আপনি শুনছেন, তারা আদতে শেয়ার মার্কেট সম্পর্কে কতটা জানেন সেটাই যথেষ্ট সন্দেহের। 

বিনিয়োগ এবং জুয়ার মধ্যে বিস্তর ফারাক রয়েছে। জুয়া খেলা মানে আপনি যদি সেখানে ১০ টাকা লাগান তাহলে ৫০ টাকাও পেতে পারেন আবার কিছু নাও পেতে পারেন। কিন্তু বিনিয়োগের ক্ষেত্রে আপনার মূলধন কিন্তু শূন্য হয় না।

  1.  শেয়ারের দাম বাড়বেই- এমন ভুল ধারণা পোষণ করলে আপনার লস হওয়ার সম্ভাবনা কিন্তু রয়েই যাচ্ছে। বিনিয়োগ করতে হলে সবার আগে অনিশ্চয়তাকে মেনে নিয়ে এগোতে হবে। শেয়ার বাজার এমন একটি জায়গা যেখানে কোন কিছুই সঠিক ভাবে নির্ধারণ করে আগে থেকে বলে দেওয়া সম্ভব হয় না। শেয়ারের দাম বাড়তে পারে কমতে পারে, কিন্তু বাড়তেই হবে অথবা কম হবেই এমন সুনিশ্চিতভাবে কোন কিছু বলা যায় না। 

অনেক বিনিয়োগকারী আছেন যারা সম্পূর্ণ বছরের দাম অ্যানালাইসিস করে শেয়ার কিনে থাকেন। এটি অবশ্যই ভালো পন্থা, তবে সব সময় কাজ করবেই এমন নয়। 

  1.  প্রচলিত ভ্রান্ত ধারনার মধ্যে আরেকটি হল শেয়ার মার্কেটে কেবল ধনী ব্যক্তিরাই বিনিয়োগ করে থাকেন এবং প্রচুর পরিমাণ টাকা বিনিয়োগ করেন। ভারতীয় শেয়ার বাজারে ৫০ শতাংশের বেশি মানুষ খুব কম মূলধন নিয়ে বাজারে বিনিয়োগ করা শুরু করেন। তবে একথা ঠিক যে আপনি যত বেশি অর্থ যত বেশি সময়ের জন্য বিনিয়োগ করবেন আপনার মূলধনের উপর রিটার্নও তত ভালো পাবেন। তাঁর মানে কখনই এই নয় যে আপনাকে বিপুল পরিমাণ অর্থ নিয়ে তবেই মার্কেটে বিনিয়োগ করতে হবে। নুন্যতম ৪ থেকে ৫ হাজার টাকা দিয়েও আপনি বিনিয়োগ শুরু করতে পারবেন।

আরো পড়ুন – Angel One অ্যাপের সাহায্য বিনামূল্যে ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট খুলুন, পাবেন ছাড়

  1. সমস্ত টাকা একই জায়গায় বিনিয়োগ করা শেয়ার মার্কেটের ভীষন রকম ভুল একটি পদক্ষেপ। আপনার কাছে মোটা অঙ্কের মূলধন আছে। এখন সেই মূলধনের সবটাই আপনি সবচেয়ে ভালো একটি কোম্পানির শেয়ার বেঁছে  নিয়ে তাতে বিনিয়োগ করে দিতে চাইছেন। বড় ভুল করে ফেলছেন। মোটা অঙ্কের মূলধন থাকলে তাকে কয়েকটি ভাগে ভাগ করে নিন। ভালো করে বাজার পর্যবেক্ষণ করুন, নির্বাচিত কয়েকটি কোম্পানির শেয়ারের মধ্যে আপনার বিনিয়োগকে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করুন এবং একই সঙ্গে বিনিয়োগ না করে বিভিন্ন সময়ে বিনিয়োগ করুন। 
  1.  বিনিয়োগ করতে কি আদৌ কোন বিশেষ জ্ঞানের প্রয়োজন আছে? অনেক নতুন বিনিয়গকারিরাই ভেবে থাকেন যে বিনিয়োগ করতে গেলে আদৌ তেমন বেশি কিছু জানার প্রয়োজন নেই। এটিও একটি বড় রকমের ভুল ধারণা। বিনিয়োগকারীরা এখানে যে ভুল টা করে তা হল তারা আত্মীয়- স্বজন, বন্ধু- বান্ধব বা টিভিতে কিছু দেখে তা থেকে শেয়ার কেনার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন। কিন্তু যে কোম্পানির শেয়ার আপনি কিনতে যাচ্ছেন সেই কোম্পানি সম্পর্কে সঠিক খোঁজ খবর নিয়েছেন কি? যথাযথ গবেষণা করেছেন কি? এগুলি না করেই যদি শেয়ার কিনে ফেলেন তাহলে পাকা বিনিয়োগকারী হওয়া থেকে একধাপ পেছনে রয়ে গেছেন। ভুলগুলো সম্পর্কে আগে ভালোভাবে বুঝুন, তবেই বিনিয়োগের দিকে পা বাড়াবেন। নাহলে নয়। 
  1.  “অমুকের দাদা শেয়ার মার্কেটে টাকা খাটিয়ে রাতারাতি বড়োলোক হয়ে গেলেন”। এই ধারণা কি আপনিও সযত্নে পুষে রেখেছেন যে শেয়ার মার্কেটে টাকা খাটালে রাতারাতি বড়োলোক হয়ে যাওয়া যায় ? এসব ধারণা আপনাকে প্রলুব্ধ করবে মাত্র, লাভবান হবেন না মোটেই। শেয়ার বাজারও আর পাঁচটা বাজারের মতই একটা জায়গা যেখানে অনেকে ফাঁদ পেতে বসে আছে আপনাকে প্রলোভন দেখিয়ে খারাপ পণ্য গছিয়ে দেওয়ার জন্য। রিস্ক আছে এবং থাকবেই। টাকা খরচ করে যা কিনছেন তা ভালোভাবে যাচাই করে তবেই কিনুন। সামর্থ্যের উপরে গিয়ে অযথা রিস্ক নিয়ে শেয়ার কিনতে যাবেন না।

পাশাপাশি এও বলে রাখতে হয় অনেকেই ভাবেন শেয়ার মার্কেট মানেই তা টাকা খোয়ানোর  ফাঁদ। এই ধারনাও কিন্তু সত্য নয়।

  1.  শেয়ার বাজার মানেই সেখানে অসাধু লোক এবং দালালের আনাগোনা- এই ধারণাও অনেকের রয়েছে। যে কোন পণ্য কেনাবেচার বাজারেই আপনি সাধু ব্যবসায়ীর পাশাপাশি অসাধু ব্যবসায়ী দেখতে পাবেন, শেয়ার বাজারও এর ব্যতিক্রম নয়। কিন্তু শেয়ার বাজার কেবলই অসাধু লোকেদের আখড়া এমন ধারণা কিন্তু নিতান্তই ভুল।  অসাধু লোকের উপস্থিতি যে কোন জায়গাতেই পাবেন। আপনাকে সচেতন হতে হবে। 

আর যারা ভাবছেন শেয়ার বাজারিরা দালাল তারা শেয়ার বাজার সম্পর্কে আরেকটু স্পষ্ট ধারণা তৈরি করুন। শেয়ার বাজারীরা কেবলমাত্র কোম্পানিগুলির শেয়ার  কেনাবেচার মাধ্যম হিসেবে কাজ করে। এই বাজারিরা যাতে লোক ঠকাতে না পারে তাঁর জন্য কঠিন নিয়মাবলীর পাশাপাশি সেবির মত রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান রয়েছে। 

শেয়ার বাজারে বিনিয়োগে আগ্রহী হলে অবশ্যই ভ্রান্ত ধারণা থেকে বেরিয়ে আসুন, যথাযথ রিসার্চ করুন, মার্কেট সম্পর্কে ধারণা নিন, প্রয়োজনে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে তারপরেই বিনিয়োগ করুন। 

আরো পড়ুন –

জেনে নিন SEBI সম্পর্কে কিছু জরুরী তথ্য। কি তাদের উদ্দেশ্য। কাজই বা কি?

কেমন হয় যদি অবসর নেওয়ার সময় কোটিপতি হয়ে যান ।আর্থিক পরিকল্পনা শুরু করুন আজ থেকেই

মিউচুয়াল ফান্ডে  বিনিয়োগ করতে চাইছেন । এই 10 টি ভুল সম্পর্কে এক্ষনি সচেতন হওয়া জরুরী

Technical Analysis কী ? জেনে নিন টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস করার বিভিন্ন প্রকার

Berkshire Hathaway।বার্কশায়ার হ্যাথাওয়ে

Leave a Reply