You are currently viewing দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর: বেঞ্জামিন গ্রাহাম

দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর: বেঞ্জামিন গ্রাহাম

বিশ্বের সিংহভাগ বিনিয়োগকারীর বিনিয়োগ শুরু হয়  বেঞ্জামিন গ্রাহামের লেখা দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর পড়ার মাধ্যমে ।বেঞ্জামিন গ্রাহাম এই বইটি ১৯৪৯ সালে লেখেন যা আজও সমান তাৎপর্যপূর্ণ । দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর এই বইটিকে বিনিয়োগ জগতে বাইবেল বলা হয় ।এই বই পড়ার মাধ্যমে যেকোন সাধারন বিনিয়োগকারী ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর হয়ে উঠতে পারবে ।

বেঞ্জামিন গ্রাহাম ছিলেন একধারে অর্থনীতিবিদ, অধ্যাপক এবং বিনিয়গকারী । বেঞ্জামিন গ্রাহামকে ‘Father of value investing’ বলা হয় ।এই বই পড়ার মাধ্যমে আপনারা জানতে পারবেন কি করে ঝুঁকি না নিয়ে স্টক মার্কেটে অর্থোপার্জন করা যায় ।

আজকের ব্লগে আমি আপনাদের সাথে  বেঞ্জামিন গ্রাহামের লেখা  দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর থেকে গুরুত্বপূর্ণ পাঠ আপনাদের সাথে শেয়ার করব, আপনারা যদি মন দিয়ে পড়ার পর, বিনিয়োগ করার সময় এইসব পাঠ প্রয়োগ করেন তাহলে আপনাদের বিনিয়োগ লাভজনক এবং নিরাপদ হবে ।

চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক বেঞ্জামিন গ্রাহামের লেখা দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টরের কিছু গুরুত্বপূর্ণ লেসন-

  দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর কিভাবে হয়ে উঠবেন ?

শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ কোন কঠিন কাজ নয় এবং তার জন্য বিশেষ কোন শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রয়োজন থাকে না । শুধুমাত্র কিছু কমন সেন্স থাকলেই আপনি বিনিয়োগে জয়ী হয়ে উঠবেন। শেয়ার বাজারে বিনিয়োগের পূর্বে ৬ টি জিনিস মাথায় রাখবেন –

i) আপনি কোন কোম্পানিতে বিনিয়োগের পূর্বে সেই কোম্পানি সম্পর্কে জানুন অথাৎ কোম্পানি কিভাবে ব্যাবসা করে সেটা জানুন। আপনি যদি ব্যাবসাটি বুঝতে পারেন তবেই বিনিয়োগ করুন ।

ii) আপনি যে ব্যাবসায় বিনিয়োগ করছেন , সেই ব্যাবসাটি কারা পরিচালনা করছে সেই সম্পর্কে জানুন । প্রয়োজনে সেই ম্যানেজমেন্ট পূর্বের ইতিহাস জানার জন্য গুগলে সার্চ করে দেখতে পারেন ।

iii) যেকোন কোম্পানিতে দীর্ঘমেয়াদির জন্য বিনিয়োগ করুন ।

iv) কোম্পানির বনিয়াদ (Fundamental) দেখে বিনিয়োগ করুন , জনপ্রিয়তা দেখে বিনিয়োগ করবেন না ।

v) Margin of safety  নিয়ে বিনিয়োগ করুন। Margin of safety হল আপনি যে টাকায় কিনছেন এবং কোম্পানির প্রকত ভ্যালুর মধ্যে পার্থক্য ।

vi) নিজস্ব পর্যবেক্ষণ ও বিশ্লেষনের ওপর আস্থা রাখুন ।

আরো পড়ুন Peter Lynch : সাফ্যেলের মন্ত্র

শেয়ারে বিনিয়োগের ৫টি গুরুত্বপূর্ণ বিনিয়োগ লেসন

দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর এই বইটিতে  বেঞ্জামিন গ্রাহাম ৫টি লেসন আলোচনা করেছে যা বিশ্বের যেকোন নিবেশকের কাছে সমানভাবে তাৎপর্যপূর্ণ ,৪ টি গুরুত্বপূর্ণ  লেসন হল –

i) প্রাইস এবং ভ্যালু দুটো আলাদা জিনিস।আপনাকে প্রাইস দেখে নয়, ভ্যালু দেখে বিনিয়োগ করা উচিত ।

ii) বিনিয়োগের প্রধান লক্ষ্য হওয়া উচিত আপনার মূল টাকা যেন নষ্ট না হয় ।

iii) আপনাকে নিশ্চিত হওয়া উচিত আপনি কত টাকা ইন্টারেস্ট পেতে পারেন ।

iv) বিনিয়োগ এবং ফটকা দুটো আলাদা জিনিস ।বিনিয়োগে আপনি নিজে ধনী হয়ে ওঠেন কিন্ত ফটকায় আপনি অন্য কাওকে ধনী করেন ।ফটকা (speculation) করলেও কখনই আপনার মূল টাকার ১০ শতাংশের বেশি করা উচিত নয় ।

মুদ্রাস্ফীতি

বিনিয়োগ এমন ব্যাবসায় করতে হবে যেখানে মুদ্রাস্ফীতি এবং করের থেকে বেশি রিটার্ন দিতে সক্ষম হবে, এমন ব্যাবসায় বিনিয়োগ করার পূর্বে কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে যা মুদ্রাস্ফীতি সমন্বয় (adjusted)  রিটার্ন দিতে সক্ষম হবে । নিয়মগুলি হল –

i) বড় কোম্পানিতে বিনিয়োগ করতে হবে ।যে সব কোম্পানি স্থিতিশীলতা, ব্যাবসায় সুনাম এবং ব্রান্ড রয়েছে এমন কোম্পানি বাছুন।

ii) আর্থিকভাবে শক্তিশালী রয়েছে এমন কোম্পানি সবসময় মুদ্রাস্ফীতিকে হারিয়ে দেয় ।

iii) লক্ষ্য রাখতে হবে কোন কোম্পানিগুলো লাগাতারভাবে ১০ বছর ধরে একই ইনকাম করছে কিংবা বৃদ্ধি হচ্ছে ।

iv) স্টক প্রাইস দেখে নয় , ব্যাবসা বিশ্লেষণ করার পর বিনিয়োগের কথা ভাবার প্রয়োজন ।

আরো পড়ুন কীভাবে শেয়ার ব্যাবসায় লাভবান হবেন ? আমার মতে সেরা 30টি বিনিয়োগ পরামর্শ ।

বাজার ওঠানামা

সেনসেক্স এবং নিফটি দেশের ভেতরে কিংবা দেশের বাইরে কিছু সাময়িক সমস্যা হলেই সূচক ওঠানামা করে । তবে নিন্মলিখিত বিষয়গুলো যদি আপনি অনুসরন করেন, তাহলে বাজার ওঠানামা করলেও আপনার ওপর কোন প্রভাব পড়বেনা ।বিনিয়োগের পূর্বে যে বিষয়গুলো আপনার অনুসরন করা উচিত, সেগুলি হল-

i) কোন কোম্পানিতে বিনিয়োগের পূর্বে কোম্পানির ভবিষৎচিন্তাভাবনা কি তা জানতে হবে ।

ii) কোম্পানি কারা ম্যানেজ করে ।

iii) কোম্পানি কতটা আর্থিকভাবে শক্তশালী তা দেখতে হবে ।

iv) সেইসব কোম্পানি বাছতে হবে যাদের ব্যাবসার লাভ দিয়ে কোম্পানি পরিচালিত হয় ।

v) কোম্পানির একটি নির্দিষ্ট বছরের বাৎসরিক রিপোর্ট না দেখে ৫-১০ বছরের  বাৎসরিক রিপোর্ট( annual report) দেখা প্রয়োজন ।

আরো পড়ুন Why retail investors lose money in the stock market./খুচরো বিনিয়োগকারীদের শেয়ার বাজারে অর্থ হারানোর কারনঃ

দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর বই সম্পর্কিত কিছু প্রশ্নোত্তরঃ

১)দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর আপনাকে কি শেখায় ?

উত্তরঃ দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর আপনাকে  ভ্যালু ইনভেস্টিং করা শেখায়।গ্রাহামের মতে বিনিয়োগকারীদের একটি কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন (Annual Report) এবং এর কার্যক্রম বিশ্লেষন করা উচিত কিন্ত বাজারের ওঠানামা উপেক্ষা করা উচিত ।বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগের প্রধান বাধাই হল তাদের ভয় এবং লোভ । এই দুটি নিয়ন্ত্রন করলেই লাভবান বিনিয়োগকারী হয়ে উঠবেন ।

২)দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর কি নতুনদের জন্য ভালো ?

উত্তরঃ দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর নতুনদের জন্য অসাধারন একটি বই । ১৯৪৯ সালে প্রথম প্রকাশনের পর থেকেই এটি ক্রমাগত আপডেট এবং সংশোধিত হয়েছে ।এই বই পড়লে বিনিয়োগকারীরা জানতে পারবেন, শেয়ার বাজার কিভাবে কাজ করে ।দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগের কথা মাথায় রেখে বইটি লেখা হয়েছে ।

৩)দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর কি পুরনো ?

উত্তরঃ বইটি ৭০ বছরের পুরনো তবুও এটি এখনও প্রাসঙ্গিক । নিরাপত্তার মাজিন দিয়ে (Margin of safety) কেনার পরামর্শটি আজও ঠিক ততটাই তাৎপর্যপূর্ণ ।

৪) দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর কি ধরনের বই ?

উত্তরঃ ১৯৪৯ সালে প্রথম প্রকাশিত দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর মূল্য বিনিয়োগের (value investing) উপর একটি ব্যাপকভাবে প্রংসশিত বই ।মূল্য বিনিয়োগের উদ্দেশ্য হল বিনিয়োগকারীদের উল্লেখযগ্য ক্ষতি থেকে রক্ষা করা এবং তাদের দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগের কৌশল সম্পর্কে শেখায় ।এটি একটি ব্যবহারিক বই , এটি পাঠকদের গ্রাহামের নীতি প্রয়োগ করতে শেখায় ।

৫) আমি কিভাবে একজন বুদ্ধিমান বিনিয়োগকারী হতে পারি ?

উত্তরঃ বেঞ্জামিন গ্রাহামের মতে বিনিয়োগকারী হিসাবে সফল যেকোন ব্যাক্তি হতে পারে, তার জন্য বিনিয়োগকারীর ধৈর্য এবং মূল্যায়ন এই দুটি গুন থাকা অবশ্যই জরুরি ।একটি কোম্পানির প্রকৃত মূল্য নির্ধারণের করার জন্য , আপনাকে অবশ্যই গবেষনার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে ।

যদিও গ্রাহামের বিনিয়োগের সুনির্দিষ্ট বিনিয়োগের বিবরন  সহজে পাওয়া যায় না , তবুও তিনি তার বহু  বছরের অর্থ পরিচালনার জন্য গড়ে আনুমানিক ২০% বার্ষিক রিটার্ন পেয়েছেন ।

আজকে যে সমস্ত বিষয় আলোচনা করা হয়েছে তা বিনিয়োগের মূলমন্ত্র বলা যেতে পারে। বিশ্বের সমস্ত সফল নিবেশকেরা এই নিয়মগুলো অনুসরন করেই সফল হয়েছে ।

আপনিও যদি দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর হয়ে উঠতে চান  তাহলে অবশ্যই বেঞ্জামিন গ্রাহামের লেখা  দ্য ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টরের লেসনগুলো অনুসরন  করুন।

আজকের অ্যাটিক্যালটি পড়ে আপনাদের যদি ভালো লেগে থাকে ,তাহলে আপনজনদের সাথে শেয়ার করে তাদের পড়ার সুযোগ করে দিন। আজকের আলোচনা সম্পর্কিত কোন প্রশ্ন থেকে থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানান ।

শেয়ার বাজার সম্পর্কিত প্রতিদিনের তথ্য পেতে আপনারা লাইক করুন শেয়ার বাজার বাংলায় ফেসবুক পেজ এবং আমাদের রবিবারের ওয়ার্কশপে জয়েন করার জন্য আজই  আপনার নাম রেজিস্টার করুন ।              

This Post Has 4 Comments

Leave a Reply